শনিবার, ৩১ Jul ২০২১, ১১:৪৩ অপরাহ্ন

আরও ৪ ই–কমার্স প্রতিষ্ঠানের ব্যাংক হিসাব তলব

আরও ৪ ই–কমার্স প্রতিষ্ঠানের ব্যাংক হিসাব তলব

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নিয়ন্ত্রণাধীন বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট (বিএফআইইউ) চারটি ডিজিটাল কমার্স (ই–কমার্স) প্রতিষ্ঠানের ব্যাংক হিসাব তলব করে ব্যাংকগুলোকে চিঠি দিয়েছে। বুধবার (৩০ জুন) প্রতিষ্ঠানগুলোর অ্যাকাউন্টের তথ্য চেয়ে বিএফআইইউ থেকে ব্যাংকগুলোকে এ চিঠি দেওয়া হয়।

ডিজিটাল কমার্স (ই–কমার্স) প্রতিষ্ঠানগুলো হলো–ই–অরেঞ্জ ডট শপ, কিউকম ডট কম, দালাল প্লাস ও বাজাজ কালেকশন। চিঠিতে এক সপ্তাহের মধ্যে এসব প্রতিষ্ঠানের লেনদেন সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য পাঠাতে বলা হয়েছে।

বিএফআইইউর চিঠিতে বলা হয়েছে, এসব প্রতিষ্ঠান এবং প্রতিষ্ঠানের স্বার্থসংশ্লিষ্ট ব্যক্তির নামে কোনো হিসাব বর্তমানে বা এর আগে পরিচালিত হলে তা জানাতে হবে। একই সঙ্গে হিসাব খোলার ফরম, কেওয়াইসি প্রোফাইল, শুরু থেকে হালনাগাদ লেনদেন বিবরণীও দিতে হবে।

এর আগে মঙ্গলবার আরো সাত ডিজিটাল কমার্স (ই–কমার্স) প্রতিষ্ঠানের অ্যাকাউন্ট তলব করে বিএফআইইউ। এ প্রতিষ্ঠানগুলো হলো–আলেশা মার্ট, ধামাকা শপিং, সিরাজগঞ্জ শপ, আলাদিনের প্রদীপ, বুম বুম, আদিয়ান মার্ট ও নিডস।

মূলত ডিজিটাল কমার্স প্রতিষ্ঠানের লেনদেনে প্রতারণা বন্ধ এবং এ খাতে শৃঙ্খলা ফেরাতে এই প্রতিষ্ঠানগুলোর লেনদেনের হিসাব চাওয়া হয়েছে।

বুধবারের চারটিসহ ব্যাংক হিসাব তলবের তালিকাভুক্ত ১১টি ডিজিটাল কমার্স প্রতিষ্ঠান ছাড়াও সাম্প্রতিক সময়ে আলোচিত ই–ভ্যালির সঙ্গে কার্ডের মাধ্যমে লেনদেন এরই মধ্যে স্থগিত করেছে বিভিন্ন ব্যাংক।

বেশ কিছু ডিজিটাল কমার্স প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে বিভিন্নভাবে বাজারমূল্যের চেয়ে অনেক কম দামে পণ্য বিক্রি, পণ্য সরবরাহের আগেই টাকা নেওয়া এবং সময়মতো পণ্য সরবরাহ না করার অভিযোগ রয়েছে।

সরকারের নতুন নির্দেশনা অনুযায়ী, ডিজিটাল কমার্স (ই-কমার্স) প্রতিষ্ঠানগুলো এখন থেকে ক্রেতাদের কাছে পণ্য ডেলিভারির পরেই টাকা পাবে। আর এসব লেনদেন বাংলাদেশ ব্যাংক নিয়ন্ত্রণ করবে।

অর্ডার করা পণ্য ক্রেতা হাতে পাওয়ার পর সরবরাহকারি ব্যক্তির (ডেলিভারি ম্যান) কাছে গ্রাহকের স্বাক্ষরযুক্ত গ্রহণ কপি জমা দেওয়ার পর পণ্য সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানের অনুকূলে টাকা ছাড় হবে। যা বাংলাদেশ ব্যাংকের ‘গেটওয়ে’ সিস্টেম ব্যবহারের মাধ্যমে সম্পন্ন হবে।

আরো খবর

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2021 BD SUNRISE