রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ০৮:৪১ অপরাহ্ন

বহুমুখী সেবায় বদ্ধপরিকর বৃহৎ ই-​কমার্স প্রতিষ্ঠান আলেশা মার্ট

বহুমুখী সেবায় বদ্ধপরিকর বৃহৎ ই-​কমার্স প্রতিষ্ঠান আলেশা মার্ট

দিনরাত ২৪ ঘণ্টা বিউটি ও হেলথ প্রোডাক্ট, ওষুধ সেবাপণ্য বিপণনে কাজ করছে আলেশা ফার্মেসি। বিনা মূল্যে রক্তচাপ ও ডায়াবেটিস পরীক্ষা করে নেওয়ার সুবিধা থাকছে। ডাক্তারের ব্যবস্থাপত্র অনুযায়ী ওষুধ দেওয়া ছাড়াও ফ্রি কনসালটেশন দেওয়া হয়। দেশের সিনিয়র সিটিজেনরা এখান থেকে ওষুধ কিনতে পারবেন ফ্রি হোম ডেলিভারিতে।

মুক্তিযোদ্ধা ও বীরাঙ্গনাদের জন্য ১০ শতাংশ ছাড়ে সেবা ভোগ করতে পারবেন। দ্রুতই দেশের ৬৪ জেলায় আলেশা ফার্মেসির সেবা পৌঁছে দেওয়া হবে বলে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

‘ইনস্ট্যান্ট স্যালারিজ’ সেবা। আলেশা সলিউশনসের এ সেবা থেকে মাসের প্রথমেই নামমাত্র নিবন্ধন ফি দিয়ে অর্থ উত্তোলন করা যাবে। ফলে মাসের শুরুতেই বিল পে, বাড়ি ভাড়া, সন্তানদের স্কুল-কলেজের বেতন দেওয়া, জরুরি কেনাকাটা করা যাবে। সুদমুক্ত ঋণ সুবিধায় চাকরিজীবীদের জীবনযাত্রা সহজ হবে।

আইটি ইন্ডাস্ট্রিতে ইতিবাচক কাজ করছে আলেশা সলিউশনস। ডিজিটাল ব্র্যান্ড স্ট্র্যাটেজি, ওয়েব ডিজাইন, ওয়েব ডেভেলপমেন্ট, অ্যাপ ডেভেলপমেন্টে গুণগত পরিবর্তন আনতে কাজ করছে প্রতিষ্ঠানটি। সব মিলিয়ে ক্রেতাকে সন্তুষ্ট রাখতে আলেশা সলিউশনস বদ্ধপরিকর।

‘আলেশা রাইড’। নিজস্ব সিকিউরিটি কন্ট্রোল সেবাসহ আরামদায়ক ভ্রমণসেবায় থাকছে আইপি ক্যামেরা, আইপি সাউন্ড ট্র্যাকার। আলেশাই বাংলাদেশে চালু করতে যাচ্ছে ডুয়াল লেন্স ক্যামেরা। যা পথ ও যাত্রী সেবার নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে। আলেশা রাইড অ্যাপে থাকছে এসওএস বাটন। যা অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি থেকে চালক ও যাত্রীকে উদ্ধার করতে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে সহায়তা করবে।

দেশি কৃষিখাতে ফিফথ জেনারেশন চাষাবাদ করছে আলেশা এগ্রো। আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারে প্রাকৃতিক নিরাপদ খাদ্য উৎপাদন, সবার হাতে খাদ্য সরবরাহ নিশ্চিত আর দেশের সম্পদ কৃষক শ্রেণিকে তাদের প্রাপ্য সম্মানের আসন প্রাপ্তি নিশ্চিত করছে এ প্রতিষ্ঠান। ফিউচারিস্টিক এগ্রো গার্ডেনিং, গ্রিনহাউজ ফুল অর্গানিক এগ্রোনমি, স্পেশালাইজড অর্গানিক ফুল ও ফল নিয়ে কাজ করছে অ্যালেশা এগ্রো। কৃষির সঙ্গে কৃষকদের অভ্যস্ত করতে তাদের বিনা মূল্যে প্রশিক্ষিত করতেও ভূমিকা রাখছে আলেশা এগ্রো।

প্রাকৃতিক সম্পদের ব্যবহার নিশ্চিত করে দেশে মাছ উৎপাদন বাড়াতে কাজ করছে আলেশা এগ্রোর পরিকল্পনা রিসার্কুলেটিং একুয়াকালচার সিস্টেম। আধুনিক বিজ্ঞানভিত্তিক এ পদ্ধতিতে পানি-মাটির সর্বোচ্চ ব্যবহার করে কিন্তু খরচ কমিয়ে মাছ চাষীরা মাছের সর্বোচ্চ ফলন নিশ্চিত করছে। বায়োফ্লক ও বটম ক্লিন পলি পন্ডের মতো আধুনিক প্রযুক্তিও আছে আলেশা এগ্রোর প্রকল্পে আছে ফুল অটোম্যাটিক অর্গানিক ফডার গ্রাস, হাই কোয়ালিটি একুরিয়াম ফিড, ওয়েদার এডাপটিভ হাইটেক প্রোবায়োটিক, হাইকোয়ালিটি পন্ড ফিড।

নিত্যপ্রয়োজনীয় পলিমার উৎপাদনে পরিবেশ-প্রতিবেশকে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেয় আলেশা পলিমার। সবার সেরা কাঁচামাল ব্যবহার করে তৈরি করা হবে পরিবেশবান্ধব সব পণ্য। উৎপাদিত পণ্য যেন দেশের গণ্ডি ছাড়িয়ে আন্তর্জাতিক বাজারেও বাংলাদেশের সম্মান প্রতিষ্ঠিত করতে পারে সে লক্ষ্যে প্রস্তুতি নিচ্ছে আলেশা পলিমার।

লেদার ইন্ডাস্ট্রির ক্ষেত্রেও আলেশা হোল্ডিংস ভুলে যায়নি পরিবেশ-প্রতিবেশকে। বরং পরিবেশবান্ধব পদ্ধতিতে তৈরি করা হবে পিইউ লেদার আর পিভিসি লেদার, যা হবে আসল চামড়ার মানের কিন্তু দামে সাশ্রয়ী।

আলেশা স্টিল লিমিটেডেও ব্যবহার করা হচ্ছে ইলেকট্রিক আর্ক ফার্নেসের মতো সবচেয়ে আধুনিক প্রযুক্তি। তারা যে ক্রুড স্টিল উৎপাদন করবেন। তা গ্রাহকদের আস্থা অর্জন করবে বলে তারা আত্মবিশ্বাসী।

সব ধরনের ইঞ্জিনিয়ারিং সেবা দিচ্ছে আলেশা ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড সার্ভিসেস লিমিটেড। ক্রেতাদের চাহিদা অনুযায়ী সময়মতো সেবা দেওয়ায় প্রতিষ্ঠান প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। বর্তমান প্রতিযোগিতামূলক বাজারে আলেশার ইঞ্জিনিয়াররা জ্ঞানে হালনাগাদ কাজ করছেন।

যেকোনো প্রকল্পের সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের পর্যায় থেকে শুরু করে বিস্তুারিত পরিকল্পনা এবং নির্মাণ ব্যবস্থাপনা মিলিয়ে একটি কমপ্লিট ইঞ্জিনিয়ারিং সেবা দিতে প্রতিষ্ঠানটির টিম পুরোপুরি দক্ষ। উদ্ভাবনী, সাশ্রয়ী, পরিবেশবান্ধব, পেশাদার ও মানসম্পন্ন সেবামূলক মনোভাব নিয়ে কাজ করছে আলেশা ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড সার্ভিসেস লিমিটেড।

আলেশা ডেভেলপমেন্টস লিমিটেড আবাসন সেবায় কাজ করছে। মানসম্মত আর্কিটেকচার আর ইঞ্জিনিয়ারিং আলেশা ডেভেলপমেন্টসের উদ্ভাবনী দক্ষতার পরিচায়ক। বাণিজ্যিক, আবাসিক, বিলাসবহুল, সাধারণ অনেক ধরনের স্থাপনার পরিকল্পনা, যা গ্রাহকদের আরামদায়ক জীবনধারা নিশ্চিত করবে।

বাংলাদেশের টেকসই রেস্টুরেন্ট গ্রুপ হয়ে উঠতে চায় আলেশা ফুড অ্যান্ড বেভারেজ লিমিটেড। বিখ্যাত ব্র্যান্ডগুলোর ফ্র্যাঞ্চাইজি আনতে এবং মানসম্মত খাবারের দিকে গ্রাহকদের নিয়ে আসতে কাজ করছে আলেশা ফুড অ্যান্ড বেভারেজ।

দিনরাত ২৪ ঘণ্টা বিউটি ও হেলথ প্রোডাক্ট, ওষুধ সেবাপণ্য বিপণনে কাজ করছে আলেশা ফার্মেসি। বিনা মূল্যে রক্তচাপ ও ডায়াবেটিস পরীক্ষা করে নেওয়ার সুবিধা থাকছে। ডাক্তারের ব্যবস্থাপত্র অনুযায়ী ওষুধ দেওয়া ছাড়াও ফ্রি কনসালটেশন দেওয়া হয়। দেশের সিনিয়র সিটিজেনরা এখান থেকে ওষুধ কিনতে পারবেন ফ্রি হোম ডেলিভারিতে।

মুক্তিযোদ্ধা ও বীরাঙ্গনাদের জন্য ১০ শতাংশ ছাড়ে সেবা ভোগ করতে পারবেন। দ্রুতই দেশের ৬৪ জেলায় আলেশা ফার্মেসির সেবা পৌঁছে দেওয়া হবে বলে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

‘ইনস্ট্যান্ট স্যালারিজ’ সেবা। আলেশা সলিউশনসের এ সেবা থেকে মাসের প্রথমেই নামমাত্র নিবন্ধন ফি দিয়ে অর্থ উত্তোলন করা যাবে। ফলে মাসের শুরুতেই বিল পে, বাড়ি ভাড়া, সন্তানদের স্কুল-কলেজের বেতন দেওয়া, জরুরি কেনাকাটা করা যাবে। সুদমুক্ত ঋণ সুবিধায় চাকরিজীবীদের জীবনযাত্রা সহজ হবে।

আইটি ইন্ডাস্ট্রিতে ইতিবাচক কাজ করছে আলেশা সলিউশনস। ডিজিটাল ব্র্যান্ড স্ট্র্যাটেজি, ওয়েব ডিজাইন, ওয়েব ডেভেলপমেন্ট, অ্যাপ ডেভেলপমেন্টে গুণগত পরিবর্তন আনতে কাজ করছে প্রতিষ্ঠানটি। সব মিলিয়ে ক্রেতাকে সন্তুষ্ট রাখতে আলেশা সলিউশনস বদ্ধপরিকর।

‘আলেশা রাইড’। নিজস্ব সিকিউরিটি কন্ট্রোল সেবাসহ আরামদায়ক ভ্রমণসেবায় থাকছে আইপি ক্যামেরা, আইপি সাউন্ড ট্র্যাকার। আলেশাই বাংলাদেশে চালু করতে যাচ্ছে ডুয়াল লেন্স ক্যামেরা। যা পথ ও যাত্রী সেবার নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে। আলেশা রাইড অ্যাপে থাকছে এসওএস বাটন। যা অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি থেকে চালক ও যাত্রীকে উদ্ধার করতে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে সহায়তা করবে।

দেশি কৃষিখাতে ফিফথ জেনারেশন চাষাবাদ করছে আলেশা এগ্রো। আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারে প্রাকৃতিক নিরাপদ খাদ্য উৎপাদন, সবার হাতে খাদ্য সরবরাহ নিশ্চিত আর দেশের সম্পদ কৃষক শ্রেণিকে তাদের প্রাপ্য সম্মানের আসন প্রাপ্তি নিশ্চিত করছে এ প্রতিষ্ঠান। ফিউচারিস্টিক এগ্রো গার্ডেনিং, গ্রিনহাউজ ফুল অর্গানিক এগ্রোনমি, স্পেশালাইজড অর্গানিক ফুল ও ফল নিয়ে কাজ করছে অ্যালেশা এগ্রো। কৃষির সঙ্গে কৃষকদের অভ্যস্ত করতে তাদের বিনা মূল্যে প্রশিক্ষিত করতেও ভূমিকা রাখছে আলেশা এগ্রো।

প্রাকৃতিক সম্পদের ব্যবহার নিশ্চিত করে দেশে মাছ উৎপাদন বাড়াতে কাজ করছে আলেশা এগ্রোর পরিকল্পনা রিসার্কুলেটিং একুয়াকালচার সিস্টেম। আধুনিক বিজ্ঞানভিত্তিক এ পদ্ধতিতে পানি-মাটির সর্বোচ্চ ব্যবহার করে কিন্তু খরচ কমিয়ে মাছ চাষীরা মাছের সর্বোচ্চ ফলন নিশ্চিত করছে। বায়োফ্লক ও বটম ক্লিন পলি পন্ডের মতো আধুনিক প্রযুক্তিও আছে আলেশা এগ্রোর প্রকল্পে আছে ফুল অটোম্যাটিক অর্গানিক ফডার গ্রাস, হাই কোয়ালিটি একুরিয়াম ফিড, ওয়েদার এডাপটিভ হাইটেক প্রোবায়োটিক, হাইকোয়ালিটি পন্ড ফিড।

নিত্যপ্রয়োজনীয় পলিমার উৎপাদনে পরিবেশ-প্রতিবেশকে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেয় আলেশা পলিমার। সবার সেরা কাঁচামাল ব্যবহার করে তৈরি করা হবে পরিবেশবান্ধব সব পণ্য। উৎপাদিত পণ্য যেন দেশের গণ্ডি ছাড়িয়ে আন্তর্জাতিক বাজারেও বাংলাদেশের সম্মান প্রতিষ্ঠিত করতে পারে সে লক্ষ্যে প্রস্তুতি নিচ্ছে আলেশা পলিমার।

লেদার ইন্ডাস্ট্রির ক্ষেত্রেও আলেশা হোল্ডিংস ভুলে যায়নি পরিবেশ-প্রতিবেশকে। বরং পরিবেশবান্ধব পদ্ধতিতে তৈরি করা হবে পিইউ লেদার আর পিভিসি লেদার, যা হবে আসল চামড়ার মানের কিন্তু দামে সাশ্রয়ী।

আলেশা স্টিল লিমিটেডেও ব্যবহার করা হচ্ছে ইলেকট্রিক আর্ক ফার্নেসের মতো সবচেয়ে আধুনিক প্রযুক্তি। তারা যে ক্রুড স্টিল উৎপাদন করবেন। তা গ্রাহকদের আস্থা অর্জন করবে বলে তারা আত্মবিশ্বাসী।

সব ধরনের ইঞ্জিনিয়ারিং সেবা দিচ্ছে আলেশা ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড সার্ভিসেস লিমিটেড। ক্রেতাদের চাহিদা অনুযায়ী সময়মতো সেবা দেওয়ায় প্রতিষ্ঠান প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। বর্তমান প্রতিযোগিতামূলক বাজারে আলেশার ইঞ্জিনিয়াররা জ্ঞানে হালনাগাদ কাজ করছেন।

যেকোনো প্রকল্পের সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের পর্যায় থেকে শুরু করে বিস্তুারিত পরিকল্পনা এবং নির্মাণ ব্যবস্থাপনা মিলিয়ে একটি কমপ্লিট ইঞ্জিনিয়ারিং সেবা দিতে প্রতিষ্ঠানটির টিম পুরোপুরি দক্ষ। উদ্ভাবনী, সাশ্রয়ী, পরিবেশবান্ধব, পেশাদার ও মানসম্পন্ন সেবামূলক মনোভাব নিয়ে কাজ করছে আলেশা ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড সার্ভিসেস লিমিটেড।

আলেশা ডেভেলপমেন্টস লিমিটেড আবাসন সেবায় কাজ করছে। মানসম্মত আর্কিটেকচার আর ইঞ্জিনিয়ারিং আলেশা ডেভেলপমেন্টসের উদ্ভাবনী দক্ষতার পরিচায়ক। বাণিজ্যিক, আবাসিক, বিলাসবহুল, সাধারণ অনেক ধরনের স্থাপনার পরিকল্পনা, যা গ্রাহকদের আরামদায়ক জীবনধারা নিশ্চিত করবে।

বাংলাদেশের টেকসই রেস্টুরেন্ট গ্রুপ হয়ে উঠতে চায় আলেশা ফুড অ্যান্ড বেভারেজ লিমিটেড। বিখ্যাত ব্র্যান্ডগুলোর ফ্র্যাঞ্চাইজি আনতে এবং মানসম্মত খাবারের দিকে গ্রাহকদের নিয়ে আসতে কাজ করছে আলেশা ফুড অ্যান্ড বেভারেজ।

আরও পড়ুনঃ

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2021 BD SUNRISE