শুক্রবার, ২৫ Jun ২০২১, ০১:৪৪ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
ইভ্যালি-আলেশা মার্টসহ ১০টি প্রতিষ্ঠানে কেনাকাটায় ব্র্যাক ব্যাংকের নিষেধাজ্ঞা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের শর্তসাপেক্ষে ২য় বর্ষে প্রমোশন গুলশানে‌ ফ্ল্যাট থেকে তরুণীর লাশ উদ্ধার, বসুন্ধরা গ্রুপ এর এমডি তানভীর এর বিরুদ্ধে মামলা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার তারিখ আবারও পেছালো কক্সবাজারে বিনোদনে নতুন মাত্রা যোগ করেছে কায়াকিং জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা স্থগিত ঢাকায় বয়ফ্রেন্ড ভাড়া করছে কোটিপতির সুন্দরী মেয়েরা ফুল আর ভালোবাসায় সিক্ত হলেন নজরুল মন্ডল টানা তিবারের (হ্যাট্রিক) কাউন্সিলর নাসির উদ্দিন রনি নির্বাচিত গোয়ালন্দ পৌর নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী নজরুল মন্ডলের জয়লাভ
ঢাকায় বয়ফ্রেন্ড ভাড়া করছে কোটিপতির সুন্দরী মেয়েরা

ঢাকায় বয়ফ্রেন্ড ভাড়া করছে কোটিপতির সুন্দরী মেয়েরা

অবিশ্বাস্য ব্যাপার ঢাকাতে বয়ফ্রেন্ড ভাড়া করছে মেয়েরা! এটা বাইরের কোন ঘটনা নয়। ঢাকা সহ বড় বড় শহর গুলোতে এমন অহরহ ঘটনা ঘটছে। এবার মুল কথায় আসা যাক। কোন শ্রেণীর নারীরা ছেলেদের টাকার বিনিময়ে নিচ্ছে? মুলত দুই শ্রেণীর নারীরা তাদের চাহিদা মত ছেলে ভাড়া করছে। প্রথম সারিতে রয়েছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে ঢাকা শহরে আসা মানবাধিকার ও এনজিও নারী কর্মিরা।

এই শ্রেণীর বিদেশি নারীরা বাংলাদেশে আসার পর তাদের নিজেদের জৈবিক চাহিদা মেটানোরর জন্য ছেলেদের ভাড়া করে থাকে। আর দ্বিতীয় তালিকায় আছে বাংলাদেশের অভিজাত সমাজের নারীরা। যাদের কেউ কেউ আছেন প্রবাসীদের স্ত্রী অবার কেউবা ব্যবসায়ীদের স্ত্রী। কেউ আছেন মধ্যবয়সী বিধবা। এই তালিকায় আরো আছে সমাজের উচ্চবিত্ত বিগড়ে যাওয়া তরুনিরা। মুলত বাংলাদেশি এই সমস্ত নারীরা বিভিন্ন উপায়ে মাসিক অথবা দিন চুক্তিতে সঙ্গি ভাড়া করছে। অনুসন্ধান:: রাজু(ছদ্মনাম) শিল্পকলা একাডেমিতে মঞ্চনাটকে অভিনয় করেন।

রাজুর অভিনয় দেখে এক বিত্তশালী মহিলা রাজুকে ৩০,০০০ টাকার বিনিময়ে তার সাথে এক মাস সময় দেবার অফার করেন। রাজি হয়ে যায় বেকার রাজু। দিপ্ত(ছদ্মনাম) ডি জে পার্টিতে বিপাশার(ছদ্মনাম) সাথে পরিচয় হয়। বড়লোকের একমাত্র মেয়ে বিপাশা। মা আইনজীবী, বাবা ব্যবসায়ের কাজে দেশের বাইরে থাকেন। নিজের অসহায় মুহুর্ত দূর করার জন্য বিপাশা ভাড়া করেন দিপ্তকে। মাঠপর্যায় রাত ১.০০ টা গুলশান নাভানা টাওয়ার থেকে একটু পশ্চিম দিকে রাস্তার দুই দিকে কিছু তরুন দাঁড়িয়ে আছে।

লক্ষ একটাই কোন নারী চলন্ত প্রাইভেট কার থেকে নেমে যদি ভাড়া করে নিয়ে যায় তাদের! এবার আসা যাক এই বিষয়ে প্রতিকার কি? এই বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করেছিলাম সোমা কামালের সাথে, তিনি জানালেন অধুনা সংস্কৃতির প্রভাবে আমদের মূল্যবোধ ক্রমেই ফিকে হয়ে যাচ্ছে, আমরা আমাদের মূল্যবোধ নষ্ট করে ফেলছি দিনে দিনে, পারিবারিক বন্ধন হ্রাস পাচ্ছে ক্রমে ক্রমে এটি একটি অন্যতম কারণ, এই বিষয়টি নিয়ে পরিবারকে সর্বপ্রথম এগিয়ে আসতে হবে,পাশাপাশি বাড়াতে হবে ধর্মীয় অনুশাসন, তাই বলে সন্তানের চাওয়া কে একেবারেই ফেলে দেওয়া যাবে না।

সম্প্রতি গুলশানের একটি অভিজাত রেস্টুরেন্টে ডিজে পার্টি চলছিল, রাত নয়টা থেকে শুরু হয়ে পার্টি চলে মধ্যরাত পর্যন্ত, দলে দলে আসতে থাকে তরুণ তরুণীরাগ এক সময় নাচে গানে মেতে ওঠে অনুষ্ঠানের সবাই।

একটু বলে রাখি ইদানিং এই সব পার্টি থেকেই কোটিপতির সুন্দরী তরুণীরা কিংবা সংগী হারা নারীরা তাদের মনোরঞ্জনের জন্য টাকার বিনিময়ে স্মার্ট তরুণদের কে চুক্তিতে বাসায় নিয়ে যায়। পার্টির আয়োজন বেশ ভালোই চলছিল, সবাই সবার পরিচিত না তবুও যেন মনে হচ্ছে সবাই একই প্লাটফর্মের দীর্ঘ দিনের চেনা। ডিজে পার্টি চলাকালীন আনুমানিক রাত একটার দিকে পেছন থেকে শোনা গেল দুই মহিলার ব্যাপক হট্টগোল, কেও কেও দেখার জন্য কাছে এগিয়ে গেলেন। দেখা মিললো এক অদ্ভুত কান্ড! যেটা আসলে সিনেমাকেও হার মানিয়েছ। দুই মেয়ে এক ছেলেকে নিয়ে টানাহেঁচড়া করছে, এক মেয়ে বলছে আমি নাবিলা চৌধুরী যা বলি তাই করি। আমি আগে পছন্দ করেছি আমিই নিয়ে যাবো। আরেক মেয়ে বলছে সাধ্য থাকলে নিয়ে যাও, আমি ধরেছি তাই কাওকে দিবো না। আমার পছন্দের জিনিস কেও নিতে পারবে না, এই দুই তরুণীর হট্টগোল এক সময় প্রকাশ্যে হাতাহাতি তে রুপ নেই। পুরো অনুষ্ঠানে ছড়িয়ে পড়ে ঘটনার রেশ, পরে আয়োজকদের মধ্যস্থতায় বিষয়টি মিমাংসা করা হয় এবং দুই মেয়ের হাত থেকে নিরীহ ছেলেটি কে সরিয়ে নেওয়া হয়। রেস্টুরেন্টের এক কর্মচারীর সাথে কথা হয় নাম প্রকাশ না করার শর্তে উনি জানালেন এটা আর নতুন কি? আগে শুনতাম টাকা দিয়ে ছেলেরাই মেয়েদেরকে নিয়ে যায় কিন্তু অনেক দিন থেকে দেখছি ঘটনা উল্টো, মাঝে মধ্যে স্মার্ট ছেলে কম থাকলে নেশার ঘোরে কিছু বখাটে মেয়ে আমাদের উপরেই ঝাপিয়ে পড়ে! আবার অনেক সময় দেখা যায় রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে যাই, হায়রে টাকা থাকলে কত কিছুই না সম্ভব!

তৌফিক, পেশায় একজন ব্যাবসী. ক্রমবর্ধমান সমাজে আধুনিকতার সাথে তাল মিলিয়ে মানুষের মূল্যবোধ যে ধংসের দারপ্রান্তে সেটা আপনারা খুব সহজেই বুঝতে পারবেন আজকের এই লেখাটি পড়লে. সমাজটা যাচ্ছে কোথায় দিনে দিনে কি হচ্ছে এসব সত্যি বড়ই চিন্তার বিষয়! তৌফিক কাজ শেষ করে একটু দেরীতে বাসার উদ্দেশ্য গুলশানের নাভানা টাওয়ার থেকে পুর্ব দিকে অগ্রসর হলেন, কিছুদূর হাঁটতেই দেখতে পেলেন কিছু তরুণ গ্যাপে গ্যাপে দাড়িয়ে আছে,হঠাৎ করেই পুরাই অবিশ্বাস্য ভাবে একটি বিষয় লক্ষ্য করলেন তিনি,একজন সুন্দরী মহিলা বয়স আনুমানিক ত্রিশ থেকে বত্রিশ হবে গাড়ি থেকে নামলেন এবং কয়েকজন তরুনের মধ্য থেকে একজনকে নিয়ে চলে গেলেন, কিছুটা কৌতুহল বশতঃ তৌফিক সাহেব কয়েকজন জিজ্ঞেস করলেন বিষয়টা কি? কিন্তু কেউ সরাসরি মুখ খুলতে চাইলেন না,তৌফিক যা বোঝার সেটা বুঝে নিলেন এবং নিজের কৌতুহল মিটানোর জন্য নিজেই দাড়িয়ে রইলেন, রাত তখন প্রাণ একটা খুব বেশী গাড়ি চলাচল করছে না, মাঝেমধ্যে পুলিশের টহলদার গাড়ি ছুটে চলেছে।

কিছু সময় দাড়ানোর পরে আচমকা একটি গাড়ি এসে দাড়িয়ে গেলো তার সামনে এবং গাড়ির ভিতর থেকে একজন সুন্দরী চিকনা মহিলা তাকে ইশারায় ডাকছে, সাহস নিয়ে তৌফিক কাছেই গেলেন, তখন ভদ্রমহিলা বললেন আজকে তুমিই চলো আমার সাথে,আগামীকাল দুপুরে আমার ড্রাইভার তোমাকে বাসায় পোঁছে দিবে। শুধু গুলশান নয় এমন খেলা বনানী এবং ধানমন্ডি এলাকায় অহরহ চলছে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2021 BD SUNRISE