বৈধ কাগজপত্র না থাকায় ইটভাটা ও সরকারি জমি উদ্ধারে অভিযান

আল আমিন আলী, কেরানীগঞ্জ প্রতিনিধি
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৪:০৬ PM, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০

কেরানীগঞ্জের তেঘরিরা এলাকায় পরিবেশ দূষণ করে অবৈধ ভাবে ইটভাটা (ব্রিক ফিল্ড) পরিচালনার কারনে জটিকা অভিযান পরিচালনা করেন উপজলা নিব্যাহী ম্যাজিসেট্রট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকতা অমিত দেব নাথ।

বৈধ কাগজপত্র না থাকার কারনে আজ বৃহস্পতিবার বিকালে অভিযান পরিচালন করে ৪টি ইটভাটাকে বুলড্রেটার দিয়ে গুড়িয়ে দেন উপজেলা প্রশাসন।

পরে উপজেলার রোহিতপুর ইউনিয়নের নতুন সোনাকান্দা ধলেশ্বরী নদীর খেয়াঘাট এলাকায় নদীর তীর সিমানায় অবৈধ ভাবে দখল করে মাছের আড়ৎ, গরুর হাট ও টং দোকানপাট গড়ে তুলার কারনে বুলড্রেজার দিয়ে ২০টি স্থাপনা উচ্ছেদ করে প্রায় পাঁচ একর সরকারি খাস জমি উদ্ধার করেন উপজেলা প্রশাসন।

তবে এলাকাবাসির দাবী বিনা নোটিশেই নদীর অর্ধশত বছরের পুরোনো মাছের আড়ৎ উচ্ছেদ করে দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন। এতে জেলেরা বিপাকে পরে যাবে।

এসময় কেরানীগঞ্জ মডেল থানা পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সহায়তায়, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অমিত দেবনাথ ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার(ভুমি) কামরুল হাসান সোহেলের এ জটিকা অভিযানের নেতৃত্ব দেন।

অভিযান পরিচালানাকারি নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অমিত দেবনাথ বলেন, বৈধ কাগজপত্র না থাকায় মহামন্য হাইকোর্টের নির্দেশনা মতে পরিবেশ রক্ষায় অবৈধ ইটভাটায় অভিযান চলছে।

অন্যদিকে যারা নদীর তীর সিমানা দখল স্থাপনা গড়ে তুলেছে সেগুলো গুড়িয়ে দিয়ে প্রায় ৫ একর সরকারি খাস জমি উদ্ধার করা হয়েছে। তবে ভূমিদস্যূ যত শক্তিশারী হোক উদ্ধারকৃত খাস জমি পূণরায় দখল করলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি।

আপনার মতামত লিখুন :