যৌতুকের টাকা না পেয়ে গৃহবধুকে পিটিয়ে হত্যা করেছেন মাদকসেবী স্বামী

মোঃ আল-আমিন, কেরানীগঞ্জ প্রতিনিধি
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৩:৪০ PM, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০

ঢাকার কেরানীগঞ্জের তেঘরিয়া ইউনিয়নের আব্দুল্লাহ্পুর মধ্যপাড়া এলাকায় গতকাল মঙ্গলবার মধ্যরাতে গৃহবধূ জন্নাতুল সরদারকে(১৮) পিটিয়ে হত্যা করার অভিযোগ উঠেছে। পরিবারের দাবী পাষন্ড স্বামী ইমন যৌতুকের টাকা না পেয়ে জান্নাতুলকে বেধর পিটিয়ে হত্যা করে ঘরের জুলন্ত ফ্যানের সাথে রশি দিয়ে বেধে আত্মহত্যার নাটক সাজিয়েছেন।

নিহত জান্নাতুল সরদারের পরিবার জানায় ইমন মাদকসেবী ছিলেন। ঘাতক স্বামীকে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানা পুলিশ আটক করেছেন।
নিহত জান্নাতুল সরদার মাদারিপুর জেলার সদর থানার ঝাউদি গ্রামের সওকত সরদারের মেয়ে। ঘাতক স্বামীর পরিবার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের শুভাঢ্যা ইউনিয়নের পশ্চিম পাড়া এলাকায় ভাড়া থাকেন।

নিহতের স্বজনরা জনায়, এক বছর আগে জান্নাতুল সরদার ও ইমন পালিয়ে গিয়ে বিয়ে করে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের আব্দুল্লাহপুর এলাকার আমির মেম্বারের বাড়ীতে ভাড়া থাকতেন। মাদকসেবী স্বামী ইমন নানা অজুহাত দেখিয়ে টাকার জন্য জান্নাতুলকে প্রতিনয়তই মারধর করত।

জান্নাতুল পরিবারের অমতে ইমনকে বিয়ে করায় বিষয়টি পরিবারের কাছে গোপন করতেন সংসার টিকিয়ে রাখার জন্য। স্বামীকে নিয়ে সুখে শান্তিতে বাঁচার চেষ্টা করেও পাষন্ড স্বামী ইমনের অত্যচারে জান্নাতুল সরদার গত রাতে মারা যায়।

দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার ওসি তদন্ত কর্মকর্তা এমদাত হোসেন জানায়, নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। নিহতের স্বামী ইমনকে আটক করা হয়েছে। হত্যাকান্ড কিনা তা তদন্ত সাপেক্ষে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

আপনার মতামত লিখুন :