‘‘ইউরোশিয়ান প্রাইজ ২০২০ প্রতিযোগিতার প্রকল্প-বিজয়ী ঢাকার মেয়র মোহাম্মদ হানিফ জামে মসজিদ”

নিজেস্ব প্রতিবেদক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১১:৩৬ PM, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২০

রাশিয়ান শিল্প ও ডিজাইনের আন্তর্জাতিক ফেস্টিভালে ইউরোশিয়ান প্রিমিয়াম ২০২০ পুরষ্কার আকিটেকচার বিভাগে হতে প্রথম স্থান অধিকার করে নিয়েছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের প্রকল্প মেয়র মোহাম্মদ হানিফ জামে মসজিদ।

রাশিয়ার নগরবাদী ও ডিজাইনারদের আর্কিট শীর্ষ প্রতিষ্ঠান ইউরোশিয়া প্রাইজ কর্তৃক গত ১০ সেপ্টেম্বর, শুক্রবার, ইউরোশিয়ান প্রিমিয়াম ২০২০ ঘোষনা করেছে। প্রতিষ্ঠানের ওয়েবপেইজে প্রকাশিত আর্কিটেকচার বিভাগ হতে প্রথম স্থান বিজয়ী হিসেবে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের প্রকল্প মেয়র মোহাম্মদ হানিফ জামে মসজিদ নাম ঘোষনা করে ফলাফল প্রকাশ করে। বিস্তারিত https://www.facebook.com/462010280940046/posts/1022936101514125/


জাতীয় ঐতিহ্য ও মুসলিম স্থাপত্যকলার অংশ হিসেবে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের আজিমপুর পুরনো কবরস্থানের অবিভক্ত ঢাকা সিটি করপোরেশনের প্রথম নির্বাচিত প্রয়াত মেয়র মোহাম্মদ হানিফের নামে ডিএসসিসি সাবেক মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকনের উদ্যোগে ২৩ কাঠা জমির ওপর ৩০ হাজার ২২ বর্গফুট আয়তনের মেয়র মোহাম্মদ হানিফ জামে মসজিদটি গত ২০১৬ সালের ২৮ আগস্ট নির্মানের কাজ শুরু করে ২০১৮ সালের ২০ সেপ্টেম্বর মসজিদটির উদ্ভোধন করা হয়।

প্রাচীন ও আধুনিক নকশার সমন্বয়ে সাজানো মসজিদটির মূল স্থপতি রফিক আজম। বাংলাদেশের মসজিদের প্রাচীন ইতিহাস, ঐতিহ্য ও ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যে অনুপ্রাণিত এর নকশায় মসজিদটিতে নান্দনিক কারুকাজের অংশ ঢাকাবাসীর ঐতিহ্য বহন করে।

মসজিদটির নকশা তৈরি ও নির্মাণকাজে আরও যুক্ত ছিলেন তার প্রতিষ্ঠানের একদল স্থপতি ও প্রকৌশলী। তারা হলেন স্থপতি ইকরামুন নেসা, প্রকৌশলী মোহাম্মদ আখতার হোসেন, প্রকৌশলী মোহাইমিনুল ইসলাম প্রমুখ।

মেয়র মোহাম্মদ হানিফ জামে মসজিদের ভেতরে রয়েছে উন্নতমানের টাইলস। নানান রঙের সুদৃশ্য বাতিতে আলোকিত হয়ে কারুার্যময় নয়নাভিরাম মসজিদটি।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) সাবেক মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকনের উদ্যোগে মসজিদটিতে এতে রয়েছে সব ধরনের আধুনিক সুবিধা। ডিএসসিসি প্রকল্পের দুটি প্যাকেজের মাধ্যমে দুই তলা মসজিদটি নির্মাণে ব্যয় হয়েছে ১৪ কোটি ১৯ লাখ ২২ হাজার ৫০০ টাকা।

এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানান মেয়র মোহাম্মদ হানিফ মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশনের জনসংযোগ কর্মকর্তা হাবিবুল ইসলাম সুৃমন

আপনার মতামত লিখুন :