সাবেক জেলা জজ শামসুল হক এর বড় সন্তান করোনা পজেটিভ দেশবাসীর কাছে দোয়া কামনা

মইনুল হক মৃধা, রাজবাড়ী
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১১:৫২ AM, ০৫ জুলাই ২০২০

রাজধানী ঢাকার সেগুন বাগিচা এলাকায় বসবাসরত রাজবাড়ীর কৃতি সন্তান অবসরপ্রাপ্ত জেলা দায়রা জজ এবং যুদ্ধাপরাধীদের বিচারকার্য পরিচালনা সংক্রান্ত কার্যক্রমের সাবেক প্রধান সমন্বয়ক মোঃ শামসুল হক এর বড় সন্তান ও এ্যাডঃ আসলাম মিয়ার ভাতিজা শামসুল, বিশিষ্ঠ সমাজসেবক আরেফিন আরিফ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

আক্রান্ত শামসুল আরেফিন আরিফ ২ জুলাই সকাল ১০ টায় ঢাকার বাসা থেকে নমুনা সংগ্রহ করে আইইডিসিআর এর পাঠানো হয় এবং বিকালে নমুনার ফলাফল পজেটিভ আসে।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায় শামসুল আরেফিন আরিফ করোনা পরিক্ষায় পজেটিভ তাকে হোম আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে ।

এসময় পরিবারের সকলের জন্য পরিবারের পক্ষ থেকে সকল শুভাকাঙ্ক্ষী ও দেশবাসির কাছে দোয়া কামনা করেন ।

সাবেক জেলা জজ মোঃ শামসুল হক রাজবাড়ী ডটকমকে বলেন, আমার বড় সন্তানের শরীরে জ্বর ও কাশির উপসর্গ দেখা দিলে গত ২ জুলাই বাসা থেকে নমুনা নিয়ে আইইডিসিআর-এর টিম এসে আমাদের বাসা থেকে নমুনা সংগ্রহ করে নিয়ে যায়। একই দিনে বিকালে আইইডিসিআর এ করোনা পরীক্ষা করা হলে রিপোর্ট পজেটিভ আসে।

আরিফ এসময় হোম আইসোলেশনে চিকিৎসা গ্রহন করছে বর্তমানে তিনি আগের থেকে ভালো আছেন।

উল্লেখ্য, রাজবাড়ী সদর উপর চরখানখানাপুর জজপাড়ার বাসিন্দা অবসরপ্রাপ্ত জেলা ও দায়রা জজ মোঃ শামসুল হক ২০১০ সালে অবসর গ্রহণ করেন।

সারাদেশের মানুষ যখন করোনার আতংকে আতংকিত হয়ে পড়ে, সেইসাথে বিপুল সংখ্যক মানুষ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় তিনি তার নিজে জেলা রাজবাড়ীর করোনা যোদ্ধা চিকিৎসক, জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা, পুলিশ বাহিনীর সদস্য, পৌরসভার মেয়র, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, জরুরী সেবায় নিয়োজিত বিদ্যুৎ বিভাগের কর্মী, সাংবাদিক ও বিভিন্ন পর্যায়ের সমাজকর্মীদের মধ্যে গত ৯ ও ১০ মে দুই শতাধিক পিপিই এবং গত ২০ মে রাজবাড়ীর চিকিৎসকদের জন্য ৪০টি N95 ফেস মাস্ক প্রদান করেন।লকডাউনের কারণে তিনি ঢাকায় অবস্থান করায় তার পক্ষে রাজবাড়ী সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ রকিবুল হাসান পিয়ালের এসব প্রতিষ্ঠানে উপকরণ হস্তান্তর করেন।

আপনার মতামত লিখুন :