গোয়ালন্দে দৌলতদিয়ায় পদ্মা নদীর পানি বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত

মইনুল হক মৃধা, রাজবাড়ী
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১০:৫১ PM, ০১ জুলাই ২০২০

দক্ষিন পশ্চিমাঞ্চলের প্রবেশদ্বার দৌলতদিয়া পদ্মা নদীর পানি বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়ায় ফেরি ঘাটে ভাঙ্গনের সৃষ্টি।

রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়ায় গেজ পয়েন্টে ৩০ সেন্টিমিটার পানি বৃদ্ধি পেয়েছে, যা বিপদ সীমার ৮ দশমিক ৯৫ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

গত ২৪ ঘন্টর চেয়ে ১২ সেন্টিমিটার পানি বৃদ্ধি হয়েছে। ১ ও ২নং ফেরি ঘাটে নদী ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ১ জুলাই বুধবার দৌলতদিয়া ফেরি ও লঞ্চ ঘাটে পানি বৃদ্ধি পাওয়ার কারনে লঞ্চ ঘাটের পল্টুনের যাত্রীদের যাতাযাতের সিড়ির মাথা ডুবে যাওয়ার কারনে বালু ভর্তি বস্তা ফেলে উচু করা হয়েছে । এবং ফেরি ঘাটের পল্টুনের র‍্যাম মিড ওয়াটার থেকে হাই ওয়াটার পয়েন্টে সরানো হয়েছে।

এদিকে পদ্মা নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ার কারনে ঘাটের আশে পাশের গ্রাম ও ফসলি জমি ভেসে যাচ্ছে। দৌলতদিয়া ইউনিয়নের ১,২,৩ নং ওয়ার্ডের কয়েক টি গ্রাম পানিতে প্লাবিত হয়েছে। ফেরি ঘাট সহ ঘাটের আশে পাশে নদী ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে। ১ ও ২ নং ফেরি ঘাটে নদী ভাঙ্গন রোধে জরুরী বালির বস্তা ফেলে ভাঙ্গন রোধ করার চেষ্টা চলছে।

বি,আই,ডাব্লিউ,টি,সি,র দৌলতদিয়া অফিসের ব্যবস্থাপক ( বানিজ্য ) মো. আবু আব্দুলাহ রনি বলেন, পানি বৃদ্ধি পাওয়ার কারনে ফেরি ঘাট গুলো সচল রাখতে মিড ওয়াটার লেভেল থেকে পল্টুন হাই ওয়াটার পয়েন্টে উঠানো হয়েছে । নদীতে স্রোতের গতি রেড়ে যাওয়ায় ফেরি পারাপারে সময় বেশি লাগছে বলে জানান।

গোয়ালন্দ পানি উন্নয়ন বোর্ডের গেজ পাঠক মো. ইদ্রিস আলী বলেন , গোয়ালন্দের দৌলতদিয়া পয়েন্টে গত ২৪ ঘন্টায় ৩০ সেন্টিমিটার পানি বৃদ্ধি পেয়ে বিপদসীমার ৮ দশমিক ৯৫ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে এবং গোয়ালন্দের দুই টি ইউনিয়নের কয়েক টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :