চেয়ারম্যানের বাড়ীতে পানি, থেমে নেই বন্যার্তদের পাশে যাওয়া

মইনুল হক মৃধা, রাজবাড়ী
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১০:২২ AM, ২০ জুলাই ২০২০

মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য, একটু সহানুভূতি কি মানুষ পেতে পারে না ও বন্ধু, মানুষ মানুষের জন্য।

এই গানটির মূল প্রতিপাদ্য বিষয়টিই যেন ফুটে উঠেছে উপরের ছবিতে। গোয়ালন্দে দেবগ্রাম ও ছোটভাকলা ইউনিয়নের কিছু অংশ বন্যায় প্লাবিত হয়ে মানুষ যখন ঘরবাড়ী ছেড়ে বেড়িবাঁধে বা কলার ভেলায় আশ্রয় নিয়েছে, যখন মানুষ করোনা পরিস্থিতির মহাদূর্যোগ কালীন সময়ে জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে এসে দাঁড়িয়েছে ঠিক তখনি গোয়ালন্দ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ছুটে গিয়েছেন তাদের মাঝে।

তাদের দূঃখ দূর্দশাকে নিজের মনে করে বিপদে তাদেরকে সাহস যুগিয়ে যাচ্ছেন। সাধারন গ্রাম্য পোশাকে উপজেলা পরিষদের সম্মানিত চেয়ারম্যান জনাব আসাদুজ্জামান চৌধুরী (আসাদ) গোয়ালন্দ উপজেলা পরিষদে প্রথমে ভাইস চেয়ারম্যান পদে বিপুল ভোটে নির্বাচিত হন। কিছুদিন পরেই গোয়ালন্দ উপজেলা চেয়ারম্যান অকাল মৃত্যুতে উপজেলা চেয়ারম্যানের দায়িত্ব তার উপর অর্পিত হয়।

এই পদে এসে তিনি গোয়ালন্দের অনেক দায়িত্ব কর্তব্য পালন করছেন। এলাকায় মানুষ আজ প্রমত্তা পদ্মার ভয়াল গ্রাসে ঘরবাড়ী ডুবে যাচ্ছে, ডুবেছে ফসলি জমি, মানুষের ঘর পানিতে টইটম্বুর। ঘরে খাবার নেই, গরু ছাগল নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছে।

উপজেলা চেয়ারম্যান এর ঘরবাড়ি ও পানিতে ডুবে গেছে তথাপিও তিনি মানুষের মাঝে ছুটে যাচ্ছেন ত্রাণ সামগ্রী বিতরণের জন্য এমন কি অফিস করতেও।

একজন মহান মানুষ এমন একজন মানবতার সেবক যিনি কখনো মানুষের বিপদে বসে থাকতে পারেননি।তার এসকল গুণ এবং আদর্শের কারণেই তিনি আজ এই স্বল্প বয়সে এতবড়ো একটি সম্মানিত স্থানে অধিষ্ঠিত হয়েছেন।

জানাযায়, ছোটবেলা থেকেই তার কাজের প্রতি গুরুদায়িত্ব, মানুষকে সম্মান ও শ্রদ্ধা প্রদর্শন সবকিছু মিলিয়েই তিনি আজ সকলের কাছে জনপ্রিয় এবং জননন্দিত উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে পরিচিত হয়েছেন।

যার সাথে দেখা হলেই হাসিমাখা মুখে সকলকে অভিবাদন জানান তিনি আর কেউ নন তিনি হচ্ছেন গোয়ালন্দ উপজেলা পরিষদের (ভারপ্রাপ্ত) চেয়ারম্যান জনাব আসাদুজ্জামান চৌধুরী (আসাদ)।

আপনার মতামত লিখুন :